শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
নগরকান্দায় অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের পাশে মেয়র প্রার্থী কামরুজ্জামান (মিঠু) আসন্ন মুন্ডুমালা পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আলোচনার শীর্ষে আ’লীগ নেতা সাইদুর রহমান নগরকান্দায় গৃহবধুর লাশ উদ্ধার নগরকান্দায় শ্বশুর ও শ্যালককে হত্যার হুমকি, শ্বশুরের থানায় অভিযোগ মিরাকান্দা পুর্বপাড়া মসজিদ নির্মাণে ২৫ ব্যাগ সিমেন্ট দিলেন সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী মোঃ মিঠু নগরকান্দার সেই মুক্তিযোদ্ধার পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা প্রশাসন দৈনিক সমকাল পত্রিকার সালথা প্রতিনিধি সাইফুলের দাদীর ইন্তেকাল সংবাদ প্রকাশের পর সেই অসহায় মুক্তিযোদ্ধার পাশে এ্যাডঃ জামাল হোসেন মিয়া সালথায় বিদ্যুৎতের তারে জড়িয়ে স্বামী -স্ত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু সালথায় বৃদ্ধকে হত্যার অভিযোগে স্ত্রী-কন্যা আটক

নগরকান্দায় শ্বশুর ও শ্যালককে হত্যার হুমকি, শ্বশুরের থানায় অভিযোগ

ডেস্ক রিপোর্ট / ১৭৫ বার পঠিত
প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০

নগরকান্দা প্রতিনিধিঃ

ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলার চরযশোরদী ইউনিয়নের দামদরদী গ্রামের আবু সাঈদ মুন্সী বলেন আমার পাশ্ববর্তী গ্রাম দহিসারা গ্রামের বাসু মাতুব্বরের ছেলে রাজু মাতুব্বরের সাথে আমার কন্যা হোসনা কে প্রায় দশ বছর আগে সামাজিক ও শরীয়া মোতাবেক বিবাহ দেই। বিবাহের কিছুদিন পর থেকে রাজু আমার মেয়েকে প্রায় সময় মারপিট করতো এবং যৌতুকের জন্য চাপ প্রয়োগ করতো। রাজু একজন মাদক নেশাগ্রস্ত লোক। এভাবেই কেটে যায় প্রায় দশটি বছর। তাদের সংসারে হামীম নামের ৮ বছরের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।আমার মেয়ে হোসনা রাজুর এতো অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে অবশেষে ৩০/০৬/২০২০ তারিখে রাজুকে ডিভোর্স দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ক ছিন্ন করে। এর পর থেকে হোসনা আমার বাড়ী হতে কোন প্রয়োজনে কোথাও যেতে চাইলে পথের মধ্যে অকথ্য ভাষায় গালাগালি করে থাকে রাজু। এরই সূত্র ধরেই গত ২৪/০৮/২০২০ চাঁদহাট বাজারে আমাকে একা পেয়ে রাজু আমার উপর চড়াও হয় এবং বলতে থাকে তোকে ও তোর ছেলে হাসানকে আমি খুন করে ফেলবো। এসময় বাজারের উপস্থিত লোকজন রাজুকে সরিয়ে নিয়ে যায়। তাই আমি আমার ও আমার পরিবারের লোকজনের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে সোমবার নগরকান্দা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি। এ ব্যাপারে রাজু এসব কথা অস্বীকার করে বলেন আমার স্ত্রী ভালো ছিলো আমার শ্বশুর জোর করে হোসনাকে দিয়ে ডিভোর্স করাইছে। এছারা আমি আমার সন্তানের লালন পালনের কথা চিন্তা করে দ্বিতীয় বিবাহও করেছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর