বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১২:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বল্লভদি ইউ‌নিয়‌নে নে‌ৗকার ম‌া‌ঝি হ‌তে চান কাজী জা‌কির হো‌সেন নগরকান্দা ইউএনও’র রুমে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানার্থে সংরক্ষিত চেয়ার’ স্থাপন। সালথায় বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদ ও বঙ্গবন্ধু স্মৃ‌তি পাঠাগার ছাত্র ফেডারেশন এর স‌ম্মেলন অনু‌ষ্ঠিত মু‌জিব আদ‌র্শে বে‌ড়ে ওঠা নি‌বে‌দিত প্রাণ আঃলীগ কর্মী আবু জাফর মোল‌্যা নি‌জের বলার মত গ‌ল্প ফাউ‌ন্ডেশন এর সালথা উপ‌জেলা মিটআপ অনু‌ষ্ঠিত সালথায় পূর্ব শত্রুতার জে‌র ধ‌রে সংঘর্ষ আহত -১৬ পুরাপাড়া ইউনিয়ন অনার্স ক্লাবের আয়োজনে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা পেলো ইউনিয়নবাসী সালথায় পাওনা টাকা চাওয়ায় অসহায় পরিবারের উপর হামলা, ব্যাপক লুটপাটের অভিযোগ আসন্ন যদুনন্দী ইউ‌নিয়ন প‌রিষদ নির্বাচ‌নে জন‌প্রিয় মুখ মা‌নোয়ার হো‌সেন সালথ‌ায় নব নির্বা‌চিত ক‌্যাব ক‌মি‌টির ইউএনও’র সা‌থে সৌজন‌্য সাক্ষাত

কাস্মেরী কুলচাষে সফল মাফি

ডেস্ক রিপোর্ট / ১২৮ বার পঠিত
প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১২ মার্চ, ২০২০

সোহাগ জামান #
প্রথমবারের মতো কাস্মেরি আপেল কুল চাষ করে সফলতা পেয়েছে ফরিদপুরের তরুন উদ্দ্যোক্তা মফিজুর রহমান মাফি। গাছ লাগানোর ১ম বছরেই অভাবনীয় ফলন দেখে খুশি চাষী মফিজুর। বর্তমানে তার এ সাফল্যে দেখে আগ্রহী হয়ে উঠছে এলাকার শিক্ষক বেকার যুবকেরা। সরকারের সহযোগিতা পেলে কুল চাষাবাদে ব্যাপক সাফল্যে বয়ে আনতে পারবেন তিনি।
ফরিদপুর সদর উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের তরুন উদ্দ্যোক্তা মফিজুর রহমান মাফি। তার বাড়ির আঙ্গিনার পাশে ৮ বিঘা জমিতে কাস্মেরি আপেল কুলের চারা রোপন করেন তিনি। গাছ লাগানো ৯ মাসের মাথায় এবছর প্রথম কুল ধরতে শুরু করে। এখন গাছের প্রতিটি ডালেই লাল কুল ধরে আছে। ছোট ছোট গাছের শাখা-প্রশাখা কুলের ভারে নুয়ে পরছে মাটিতে। ফলে প্রতিটি গাছকে বাঁশ দিয়ে মাচা করে রাখা হয়েছে। আর কয়েক দিন পর থেকেই গাছ থেকে কুল সংগ্রহ করে বাজারজাত করা হবে বলে নেয়া হচ্ছে বিশেষ যতœ। আবার এই বাগানের গাছ থেকেই কাটিং করে তৈরী করা হচ্ছে নতুন চারা। তরুন উদ্যোক্তা মফিজুর রহমান মাফি জানান, বাগানে গাছ লাগানো থেকে শুরু করে এপর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ লাখ টাকা খরচ হয়েছে তার। যে পরিমান ফলন হয়েছে তাতে বাজারে ভালো দাম পেলে এবছর ২০-২৫ লাখ টাকা আয় হবে বলে মনে করছেন তিনি। কাস্মেরী কুল চাষে মফিজুর রহমানের অভাবনীয় সাফল্য দেখে কুল চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন এলাকার বেকার যুবকেরা। মফিজুরের বাগানে কাজ করছেন ১০/১২ জন শ্রমিক। লাভজনক নিরাপদ ফল উৎপাদনে সরকার কৃষকদের সকল প্রকার সহযোগীতা করবে এমনটাই প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর